করোনা ভাইরাস মোকাবিলায় কিউবার ইন্টারফেরন-বি

corona

হাজার হাজার করোনা ভাইরাস-জনিত রোগীর নিরাময়ে তৈরি কিউবার গণদায়বদ্ধ চিকিৎসক সমাজ।হাভানাস্থিত রাষ্ট্রীয় সংস্থা বায়োকিউবাফার্মা গোষ্ঠীর (যা প্রধানত জৈবপ্রযুক্তিনির্ভর ভেষজ গবেষণা মারফৎ অনেক ওষুধ, আধুনিক চিকিৎসা-যন্ত্রপাতি ও থেরাপি আবিস্কার ও প্রয়োগে কর্মরত সভাপতি এদুয়ার্দো মার্তিনেজ এক সাংবাদিক সম্মেলনে জানিয়েছেন যে বায়োকিউবাফার্মার অধীন সংস্থাগুলিতে ইতিমধ্যেই অন্তত ২২টি ওষুধ (মৌখিক ও ইঞ্জেকশ্যন উভয়ই উদ্ভাবিত হয়েছে (যার মধ্যে প্রধানতম ইন্টারফেরন-বি, যেগুলি করোনাভাইরাস-জনিত রোগীর নিশ্চিত নিরাময় সম্ভব। এগুলির উৎপাদনও বাড়ছে।

ইন্টারফেরন-বি চীনে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় প্রথম দিকে থেকে ১৫০০-র বেশি রোগীকে সুস্থ করে তুলেছে। তাছাড়া ইন্টারফেরন-২ প্রয়োগে শ্বাসকষ্টজনিত রোগের চিকিৎসার কার্যকরিতা চীনা জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন স্বীকার করেছে শ্বাসকষ্টজনিত রোগের চিকিৎসায় ৩০টি প্রধান ওষুধের মধ্যে গণ্য ইন্টারফেরন-বি। এই সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে লন্ডনের মর্নিংস্টার দৈনিকের আন্তর্জাল সংস্করণে।ইতালিতে কিউবা থেকে পর্যাপ্ত সংখ্যক ইন্টারফেরন-বি সহ প্রেরণ করেছে করোনাভাইরাস-জনিত রোগের চিকিৎসার জন্য, চীনেও কয়েক শত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীদের আর সাথে জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি কেন্দ্রের (সিআইজিবি) কিছু গবেষকদের পাঠানো হয়েছে, যারা  চীনা বিশেষজ্ঞদের পাশাপাশি করোনভাইরাস প্রাদুর্ভাবের লড়াইয়ে শামিল হয়েছেন। সিআইজিবির অধিকর্তা পরিচালক ইউলোগিও পাইমেন্টেল জানিয়েছেন যে চীনে ইন্টারফেরন-বি সহ জীবনরক্ষানুগ ওষুধের পর্যাপ্ত সরবরাহ রয়েছে, যা চীনের ৮০,০০০ এরও বেশি করোনা ভাইরাস-সংক্রামিতদের ৯০ শতাংশ রোগীদের উপর সফল প্রয়োগ হয়েছে।

বায়োকিউবাফার্মা গোষ্ঠী ৪০টির বেশি দেশে ওষুধ ও আধুনিক চিকিৎসা-যন্ত্রপাতি রফতানি করে। চীন, স্পেন, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, মেক্সিকো, ব্রেজিল, প্রভৃতি দেশে যৌথ মালিকানায় বায়োকিউবাফার্মা শাখা কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেছে এবং এটি একটি লাভজনক সংস্থা অথচ এদের ওষুধ ও চিকিৎসা-যন্ত্রপাতির দাম অনেক কম। কিউবাতে তো এগুলি নামমাত্র মূল্যে লভ্য। এদের কর্মী সংখ্যা প্রায় ২২,০০০। এই সংস্থা প্রতিষ্ঠায় (১৯৮৬) প্রধান ভূমিকা সিআইজিবির।

ইন্টারফেরন-বি চীনে করোনাভাইরাস মোকাবিলায় প্রথম দিকে থেকে ১৫০০-র বেশি রোগীকে সুস্থ করে তুলেছে। তাছাড়া ইন্টারফেরন-২ প্রয়োগে শ্বাসকষ্টজনিত রোগের চিকিৎসার কার্যকরিতা চীনা জাতীয় স্বাস্থ্য কমিশন স্বীকার করেছে শ্বাসকষ্টজনিত রোগের চিকিৎসায় ৩০টি প্রধান ওষুধের মধ্যে গণ্য ইন্টারফেরন-বি। এই সংবাদ প্রকাশিত হয়েছে লন্ডনের মর্নিংস্টার দৈনিকের আন্তর্জাল সংস্করণে। ইতালিতে কিউবা থেকে পর্যাপ্ত সংখ্যক ইন্টারফেরন–বি সহ প্রেরণ করেছে করোনা ভাইরাস-জনিত রোগের চিকিৎসার জন্য, চীনেও কয়েক শত চিকিৎসক ও স্বাস্থ্য কর্মীদের আর সাথে জেনেটিক ইঞ্জিনিয়ারিং অ্যান্ড বায়োটেকনোলজি কেন্দ্রের (সিআইজিবি) কিছু গবেষকদের পাঠানো হয়েছে, যারা চীনা বিশেষজ্ঞদের পাশাপাশি করোনভাইরাস প্রাদুর্ভাবের লড়াইয়ে শামিল হয়েছেন।সিআইজিবির অধিকর্তা পরিচালক ইউলোগিও পাইমেন্টেল জানিয়েছেন যে চীনে ইন্টারফেরন-বি সহ জীবনরক্ষানুগ ওষুধের পর্যাপ্ত সরবরাহ রয়েছে, যা চীনের ৮০,০০০ এরও বেশি করোনা ভাইরাস-সংক্রামিতদের ৯০ শতাংশ রোগীদের উপর সফল প্রয়োগ হয়েছে।

বায়োকিউবাফার্মা গোষ্ঠী ৪০টির বেশি দেশে ওষুধ ও আধুনিক চিকিৎসা-যন্ত্রপাতি রফতানি করে। চীন, স্পেন, সিঙ্গাপুর, থাইল্যান্ড, মেক্সিকো, ব্রেজিল, প্রভৃতি দেশে যৌথ মালিকানায় বায়োকিউবাফার্মা শাখা কোম্পানি প্রতিষ্ঠা করেছে এবং এটি একটি লাভজনক সংস্থা অথচ এদের ওষুধ ও চিকিৎসা-যন্ত্রপাতির দাম অনেক কম। কিউবাতে তো এগুলি নামমাত্র মূল্যে লভ্য। এদের কর্মী সংখ্যা প্রায় ২২,০০০। এই সংস্থা প্রতিষ্ঠায় (১৯৮৬) প্রধান ভূমিকা সিআইজিবির।

খণ্ড-27
সংখ্যা-8
19-03-2020