চলে গেলেন কমরেড মঞ্জুবৌদি

২ জানুয়ারি তারিখে ভোরবেলায় জগদ্দল মাদ্রাল অঞ্চলের নিবাসী,দীর্ঘদিনের পার্টি সদস্যা মঞ্জু দাস প্রয়াত হলেন। তিনি অনেক দিন ধরে কর্কট রোগে আক্রান্ত ছিলেন। মৃত্যুকালে তাঁর বয়স হয়েছিল ৬৫ বছর। তাঁর মৃত্যুতে ব্যারাকপুর শিল্পাঞ্চল এরিয়া কমিটি শোক জ্ঞাপন করেছে। তাঁর পরিবারবর্গের যে অপূরণীয় ক্ষতি হল তা বুঝে গভীর সমবেদনা জানায়। মঞ্জুবৌদির স্বামী ছিলেন পার্টির স্থানীয় নেতা এবং ইতিপূর্বে প্রয়াত হয়েছেন। কমরেড মঞ্জুবৌদি পান্নাদার সাথে দিল্লী, পাটনা, কলকাতার পার্টির বিভিন্ন কার্য্যক্রমে যোগদান করেছেন। স্থানীয়ভাবে বিভিন্ন বৈঠক এবং সভায় অংশ নিতেন। তাঁর বড় ছেলে দুলাল দাস, ছোট মেয়ে মাধুরী দাস, বড় জামাই শ্যাম দীর্ঘদিনের পার্টি সদস্য।

এই পরিবারটি ছিল বহু প্রতিকুলতায় পার্টির আশ্রয়। জরুরী অবস্থার সময় স্বামী পান্নালাল দাস জেলে থাকাকালীন আর্থিক অস্বচ্ছলতার মধ্যেও ছোট ছোট ছেলে মেয়েদের নিয়ে সংসারের দায়িত্বপালন করতে হয়। এমনকি পরেও অভাব অনটনের মধ্যে একাধারে সংসার অন্যদিকে নিজের সাধ্যমত রাজনৈতিক কর্মকান্ডে সামিল থেকেছেন এবং সহযোগিতার হাতও বাড়িয়ে দিয়েছেন। কমরেড পান্নাদার মৃত্যুরপরও তিনি প্রতিবছর তাঁর পরিবার পরিজন, স্থানীয় প্রতিবেশী ও পার্টি কমরেড নিয়ে স্থানীয় ভাবে তাঁর স্মরণ সভা পালন করতেন। জনগণ ও পার্টির প্রতি আস্থা ও ভালবাসা—কমরেড মঞ্জু দাস ও তাঁর স্বামী পান্নালাল দাসের জীবন থেকে সকল পার্টি কর্মীদের শিক্ষা গ্রহণ করতে হবে।

প্রয়াত কমরেড মঞ্জু দাস লাল সেলাম।

খণ্ড-26
সংখ্যা-3
17-01-2019