সমাজকর্মী সন্দীপ পান্ডেকে লখনৌয়ের গৃহবন্দিত্ব থেকে অবিলম্বে মুক্তি দিন

সিপিআই(এমএল) কেন্দ্রীয় কমিটি ১১ আগস্ট এক বিবৃতিতে — সমাজকর্মী এবং ম্যাগসেসে পুরস্কার বিজয়ী সন্দীপ পান্ডে এবং লখনৌয়ের এনএপিএম সচিব অরুন্ধতি ধুরুকে বেআইনিভাবে গৃহবন্দী করার তীব্র নিন্দা জানায়। সেদিন সন্ধ্যায় কাশ্মীরের প্রতি সংহতি জানিয়ে তাদের একটি অনুষ্ঠানে অংশ নেওয়ার কথা ছিল। তাদের বাড়ির ভিতরে বা বাইরে কাউকে প্রবেশ করতে দেওয়া হয়নি। প্রাঙ্গণে মোতায়েন করা হয় প্রচুর পুলিশ। উত্তরপ্রদেশ প্রশাসন এই কার্যকলাপের মধ্যে দিয়ে আইনের সীমকে নির্লজ্জভাবে লঙ্ঘন করেছে।

অন্যদিকে যিনি লখনৌয়ের কাশ্মীর সংহতি কর্মসূচির আয়োজকদের মধ্যে রয়েছেন সেই মহম্মদ শোয়েবকে এই অনুষ্ঠানটি বাতিল করার জন্য পুলিশের পক্ষ থেকে চাপ দেওয়া হচ্ছে বলে খবর আসছে। দেশের অন্যান্য অঞ্চল থেকেও গণতান্ত্রিক কণ্ঠস্বরের ওপর এই ধরনের নির্মম হামলার খবর পাওয়া গেছে।

মোদী শাহর সরকার দেশের নাগরিকদের গণতান্ত্রিক পথে বিরোধিতার সাংবিধানিক অধিকারকেও কেড়ে নিতে চাইছে, যা দেশের গণতান্ত্রিক কাঠামোর উপর এক সরাসরি আক্রমণ। কেন্দ্রের মোদী সরকার এবং উত্তরপ্রদেশের যোগী সরকারকে অবশ্যই এই ধরনের দমননীতি চালানো থেকে সরে আসতে হবে এবং অবিলম্বে সন্দীপ পান্ডে ও অরুন্ধতী ধুরুকে বেআইনি গৃহবন্দীত্ব থেকে মুক্তি দিতে হবে। কাশ্মীরের ঘটনায় সংহতি জানানো প্রত্যেক নাগরিকের অধিকারের মধ্যেই পড়ে এবং তার সামনে কোনও রকম প্রতিবন্ধকতা তৈরি করা চলবে না।

খণ্ড-26
সংখ্যা-25
22-08-2019