কর্পোরেটপন্থী ও কৃষক বিরোধী আইন বাতিল কর

pro-corporate and anti-peasant laws
anti-peasant laws

সংযুক্ত কিষান মোর্চার মূল দাবি এখনো পূরণ হয়নি। অবিলম্বে আশীষ মিশ্র টেনি ও তার সহযোগীদের অবিলম্বে গ্রেফতার করতে হবে বলে মোর্চা দাবি জানিয়েছে। দাবি জানিয়েছে হরিয়ানা মুখ্যমন্ত্রী মনোহর লাল খট্টরকে অবিলম্বে বরখাস্ত করতে হবে। সংযুক্ত কিষান মোর্চা শীঘ্রই দাবি আদায়ের কর্মসূচি ঘোষণা করবে এবং দাবি আদায় না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। গুরনাম সিং চাডুনিকে গ্রেপ্তার করে আটকে রাখার নিন্দা জানাচ্ছে এসকেএম। ইউপি সরকারের আচরণ অগণতান্ত্রিক এবং কর্তৃত্ববাদী। এটা স্পষ্ট যে লখিমপুর খেরী হত্যাকাণ্ডের সত্য বিশ্ববাসীর সামনে উদ্ঘাটিত হয়ে যাওয়ার ভয় পেয়ে উত্তর প্রদেশের যোগী সরকার নিজেদের বাঁচাতে চাইছে।

গতকাল নয়াদিল্লির ইউপি ভবনের বাইরে আয়োজিত একটি বিক্ষোভ শেষ হওয়ার পর মন্দির মার্গ থানার দিল্লি পুলিশ কয়েকজন বিক্ষোভকারীকে তুলে নিয়ে গিয়ে আটকে রেখেছিল। রাজস্থানে হনুমানগড়ে কালেক্টরেট অফিসে ধান সংগ্রহের জন্য বিক্ষোভকারী কৃষকদের ওপর পুলিশ লাঠিচার্জ করেছে। ভিডিও ফুটেজে দেখা যাচ্ছে যে পুলিশ কৃষকদের তাড়া করছে এবং নির্বিচারে লাঠিচার্জ করছে। এসকেএম প্রতিবাদী কৃষকদের উপর পুলিশের এই হিংসার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছে। জানা গেছে, কয়েকজন কৃষক আহত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছে। কৃষকদের আন্দোলনকে রাজনৈতিক লাভের জন্য ব্যবহার না করে কৃষিপণ্য কিনে, মূল্য সহায়তা করে, দুর্যোগে ক্ষতিপূরণ দেওয়ার মৌলিক অধিকার দিয়ে, কৃষকদের প্রতি তাদের সমর্থন ও সহানুভূতি দেখাতে বিভিন্ন রাজ্য সরকারগুলির কাছে আবেদন জানাচ্ছে এসকেএম। কৃষকদের দাবি, রাজস্থান সরকারকে ধান সংগ্রহ শুরু করতে হবে এবং সেচের জল সরবরাহের অভাবে ফসল যাতে ধ্বংস না হয় তা নিশ্চিত করতে হবে। হিমাচল প্রদেশ, বিহার, ঝাড়খণ্ড, তামিলনাড়ু, কর্ণাটক, তেলেঙ্গানা, পশ্চিমবঙ্গের মতো রাজ্যগুলিতে কৃষক আন্দোলন আরও বেগবান ও তীব্র হচ্ছে এবং লখিমপুর খেরী হত্যাকাণ্ডের বিরুদ্ধে ক্ষোভ ও প্রতিবাদ প্রকাশের জন্য অসংখ্য স্থান থেকে স্বতস্ফূর্ত বিক্ষোভ থেকে এই ছবি পরিস্কার।বহু জায়গায় বিজেপি নেতাদের বিরুদ্ধে বিক্ষোভ অব্যাহত রয়েছে।

গান্ধী জয়ন্তীতে চম্পারণে শুরু হওয়া লোকনীতি সত্যাগ্রহ যাত্রা চতুর্থ দিনে প্রবেশ করেছে। আজ সকালে খোরামপুর (গোপালগঞ্জ জেলা) থেকে রওনা হওয়ার পর, যাত্রাটি বিকেলে মঙ্গলপুর বাজারে পৌঁছায়। এখানেও, এটি স্থানীয় লোকদের কাছ থেকে উষ্ণ অভ্যর্থনা পেয়েছে। কিষান জনজাগরণ পদযাত্রা আজ রাতের তরুণ এবং প্রবীণ কৃষকদের মধ্যে সিওয়ান জেলার মাদারপুরে পৌঁছাবে। যাত্রার প্রতিটি দিন, প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে একটি করে গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্ন করা হচ্ছে। তরুণ এবং প্রবীণ কৃষক উভয় পক্ষ থেকেই আজকের প্রশ্ন করা হচ্ছে – সরকার কখন কৃষকদের জন্য একটি এমএসপি গ্যারান্টি আইন প্রণয়ন করবে? পদযাত্রা কেন্দ্রীয় মন্ত্রী অজয় মিশ্র টেনিকে অবিলম্বে বরখাস্ত এবং তার ছেলে আশীষ মিশ্রকে গ্রেফতারের দাবি করছে। এসকেএম এও পুনরাবৃত্তি করছে যে তথাকথিত “সংস্কার” কৃষকদের জন্য উপকারী নয়, সব দলও একই কথা বলছে। এই “সংস্কারগুলি” দেশের লক্ষ লক্ষ কৃষকের স্বার্থের বিনিময়ে কৃষি কর্পোরেট সংস্থা’ ব্যবসার সুবিধার্থে করা হয়েছে। কৃষকরা এ ধরনের সংস্কার চায়নি, চায়ও না। তারা কর্পোরেটপন্থী এবং কৃষক বিরোধী তিনটি আইন সম্পূর্ণ বাতিল করার দাবি জানাচ্ছে।

খণ্ড-28
সংখ্যা-36
07-10-2021